নার্সিসাস: নিজের শারীরিক সৌন্দর্যে মাতাল এক যুবক

নিজের সৌন্দর্যের এতো প্রশংসা শুনতে শুনতে প্রচন্ড অহংকারী হয়ে উঠলেন নারসিসাস। তার মধ্যে এতোটাই অহংকার জন্ম নিলো, যে কোনো নারীকেই নিজের জন্য তার যথেষ্ট সুন্দর মনে হতো না। নিজের সমপর্যায়ে কাউকে ভাবতে পারতেন না।

0 Comments

পেলে: বস্তি থেকে ফুটবল সম্রাট হওয়ার গল্প

১৯৫০ বিশ্বকাপের সময় পেলের বয়স তখন ১০ বছর। তখন ফুটবল বিশ্বকাপ হতো লীগের মতো করে ব্রাজিল নিজেদের শেষ ম্যাচটা উরুগুয়ের সাথে ড্র করলেই হয়ে যেতো বিশ্বচ্যাম্পিয়ন। কিন্তু গিগিয়া যখন শেষ গেলটা করে উরুগুয়ে কে জিতিয়ে দেন সেদিন আবেগপ্রবণ ব্রাজিল সমর্থকদের বহু দর্শক মারাকানার স্টেডিয়ামের ছাঁদ থেকে লাফ দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন তার মধ্যে ১৬ জন মারা যায়। পুরো ব্রাজিল তখন শোখে আচ্ছন্ন। সেদিন নিজের বাসায় বসেই কাঁদছিলেন পেলের বাবা দোনদিনহো। তখন তার ১০ বছর বয়সের ছেলে পেলে বলেছিলেন, কেঁদো না, আমি বিশ্বকাপ নিয়ে আসব। 

1 Comment

এডমন্ড স্পেনসার: তিনি কবিদের কবি

কবি শৈশবে শিক্ষালাভ করেছেন লন্ডনের মার্চেন্ট টেলার্স স্কুলে এবং কেম্ব্রিজের প্রেমব্রোক হলে। ১৫৬৯ খ্রিস্টাব্দে প্রমকে হল থেকেই তিনি ম্যাট্রিক পাস করন এবং ১৫৭৬ খ্রিস্টাব্দে সেখান থেকেই তিনি এম এ ডিগ্রি লাভ করেন। ছাত্রাবস্থায় তাকে দারিদ্র্যের মধ্যে অতিবাহিত করতে হয়। প্রেমব্রোক কলেজে ঝাড়ুদার ও চাকরের কাজ তাকে করতে হতো। বিনিময়ে পেতেন খাদ্য ও আশ্রয়।

0 Comments

অ্যাডোনিস: গ্রীক মিথলজির সবচেয়ে সুদর্শন পুরুষ

অ্যাডোনিস গ্রীক মিথলজির সবচেয়ে সুদর্শন পুরুষ, যার সৌন্দর্যে মজেছিলেন স্বয়ং গ্রীক দেবী আফ্রিদি। তবে অ্যাডোনিস ও দেবী আফ্রোদিতির প্রেম দীর্ঘস্থায়ী হয়নি, বন্য জন্তুর আক্রমনে প্রেমিক অ্যাডোনিস কে হারিয়ে এক দীর্ঘকালীন বিষাদে ডুবে গিয়েছিলেন দেবী আফ্রোদিতি।

2 Comments

বিউলফ: ইংরেজি সাহিত্যের প্রথম মহাকাব্য

বেউলফ মহাকাব্য শুরু হয়েছে রাজা হ্রথগারের কাহিনি দিয়ে। তিনি তার স্বজাতীয়দের জন্য হেওরট নামে এক বিশাল প্রাসাদ নির্মাণ করেছিলেন। এই প্রাসাদে তিনি, তার স্ত্রী ওলেথথিউ ও তার যোদ্ধারা গান গেয়ে ও আনন্দ করে সময় কাটাতেন। এই আওয়াজে গ্রেন্ডেল নামে এক ট্রোল-আকৃতির দৈত্য বিরক্ত হলো। সে ছিল বাইবেলেরই চরিত্র কেইনের বংশধর। সে প্রাসাদটিকে আক্রমণ করে হ্রথগারের ঘুমন্ত যোদ্ধাদের অনেককে হত্যা করে খেয়ে ফেলল। হ্রথগার ও তার অবশিষ্ট যোদ্ধারা গ্রেন্ডেলকে পরাজিত করতে না পেরে হতাশ হয়ে হেওরট ছেড়ে চলে গেলেন।

1 Comment

ফুটবল বিশ্বকাপে ঘটে যাওয়া ২০ টি মজার ঘটনা

টেলিভিশন রিপ্লেতে দেখা যায়, গোলটি করার সময় ম্যারাডোনা মাথা দিয়ে বলটি হেড করতে না পারায় নিজের হাত ব্যবহার করেন। হাত দিয়ে বলে আঘাত করে তিনি সেটিকে গোলপোস্টের দিকে ঠেলে দেন। গোল শেষে ম্যারাডোনা সতীর্থদের উদ্দেশ্যে চিৎকার করে বলেছিলেন, “আমাকে জড়িয়ে জড়িয়ে ধরে উৎযাপন করো নয়তো রেফারি গোল বাতিল করে দেবে।”

0 Comments

গিউলিয়া তোফানা: মেকাপে বিষ দিয়ে ৬০০ পুরুষকে হত্যা করেছিলেন

গিউলিয়া তোফানা আনুমানিক ১৬২০ সালে জন্মগ্রহণ করেন। মৃত্যুবরণ করেন ১৬৫৯ সালে। যার তৈরিকৃত বিষে মারা গেছেন অন্তত ৬০০ জনের মত। গিউলিয়া তোফানা বিষ প্রয়োগে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে একটি নিদিষ্ট শ্রেণীর মানুষ কে হত্যা করতেন। তিনি তাদের ই হত্যা করতেন যাদের বেঁচে থাকার অধিকার নেই মনে করতেন।

0 Comments

হাজ মোহাম্মদ মেসফুই : যে সিরিয়াল কিলার কে দেয়ালবদ্ধ করে মৃত্যু দেওয়া হয়েছিল

হাজ মোহাম্মদ মেসফিউই মরক্কোর সিরিয়াল কিলার ছিলেন। পেশায় তিনি ছিলেন একজন জুতার কারিগর। মরক্কোর তখনকার প্রধান শহর মারাক্কেশে নিজস্ব জুতার দোকান ছিলো। ১৯ শতকে মারাকেশ কে আফ্রিকা মহাদেশের বাণিজ্যের কেন্দ্রস্থল হিসাবে দেখা হতো, তাই প্রচুর দেশি ও বিদেশি বণিক আসতেন। বাণিজ্যিক অঞ্চল হওয়ার এখানে অপরাধের পরিমান ও সংঘটিত হতো প্রচুর।

0 Comments

রদ্রিগো ডি ডেরেজ: তামাক সেবনের অপরাধে ১০ বছরের কারাদণ্ড ভোগ করেছিলেন

ক্রিস্টোফার কলম্বাসের অভিযাত্রীদের জাহাজ স্পেনের সেভিলার আয়ামন্টে বন্দরে পৌঁছালে, জেরেজ জনসমক্ষে ধূমপান করার সিদ্ধান্ত নেয়। সাধারণ মানষজন তার নাক ও মুখ দিয়ে ধোঁয়া বের হতে দেখে ভেবে বসেছিলো শয়তান হয়তো মানুষের রূপে পুনর্জন্ম নিয়েছে।

0 Comments

মধ্যযুগের ফরাসী নারীরা স্বামীকে কাছে রাখতে বিষ প্রয়োগ করতেন

পুরুষ তার স্ত্রীর কাছে অর্থাৎ বাড়ি ফিরতে যত দেরি করবে, সে তত বেশি অসুস্থ হয়ে পড়বে। এবং, অবশেষে যখন তিনি বাড়িতে ফিরে আসেন, তার স্ত্রী অজান্তেই তাকে সেই বিষের প্রতিষেধক দিতেন।

1 Comment

বেন স্টোকস এর অসাধারণ নৈপুণ্যে ১ যুগ পর বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ড: টি টুয়েন্টি বিশ্বকাপ ফাইনাল ২০২২

এবারের টি-টুয়ান্টি বিশ্বকাপটি আমার চোখে দেখা এখন পর্যন্ত সেরা বিশ্বকাপ। বাছাইপর্ব থেকে শুরু করে গ্রুপ পর্ব নাটকিয়তায় ভরপুর…

0 Comments
Read more about the article প্লেগ রোগ নিরাময়ের জন্য স্যার আইজাক নিউটনের আবিষ্কৃত উদ্ভট ভেকসিন
একজন প্লেগ ডাক্তার ও স্যার আইজ্যাক নিউটন কে নিয়ে ১৬৮৮ সালে আঁকা ছবি। Image Credit: Wikimedia commons

প্লেগ রোগ নিরাময়ের জন্য স্যার আইজাক নিউটনের আবিষ্কৃত উদ্ভট ভেকসিন

নিউটনের সময়ে (১৬৬৫-১৬৬৬) সালে ইংল্যান্ডে প্লেগ রোগ আঘাত হানার পর, ইংল্যান্ডের বেশিরভাগ লোক নিজেদের বাড়ির সদর দরজা বন্ধ রাখতো। আর যদি কোনো বাড়িতে কোনো ব্যাক্তি প্লেগ রোগের সংক্রমণের শিকার হতো তাদের বাড়ির দরজায় লাল রঙের ক্রস এঁকে দেওয়া হতো।

0 Comments

লেক নেট্রোনের অজানা কথা

২০১১ সাল, ব্রিটিশ ফোটোগ্রাফার নিক ব্র্যান্ড ছবি তুলছিলেন পূর্ব আফ্রিকার কেনিয়ার সীমান্তের পাশে। এক সময় তিনি প্রবেশ করে তানজানিয়ার আরুশা অঞ্চলে। তিনি একটি হৃদ দেখতে পান যার নাম ন্যাট্রন হৃদ। এই হৃদটা অন্যান্য হৃদ থেকে সম্পুর্ন আলাদা। কিন্তু বিস্ময়ের এখানেই শেষ নই। কেননা, এর তীরের দিকে অনেক পশু পাখির মৃত দেহ এবং সেগুলো প্রাকৃতিক উপায়ে মমি করে রাখা। মিশরীয়রা যেমন করে মমী করতো।

0 Comments

সেপ্পুকু বা হারাকিরি: জাপানি সংস্কৃতিতে অনুমোদিত আত্মহত্যা

সেপ্পুকু বা হারা-কিরি অর্থ হল পেট কেটে ফেলা। হ্যাঁ, এই রীতিতে নিজেই নিজের পেট কেটে মৃত্যুবরণ করে আত্মহত্যাকারী।

0 Comments

কাক যখন সিআইএ এজেন্ট!

এক সুউচ্চ টাওয়ারের উঁচু এক তলায় বিলাসবহুল এপার্টমেন্টে কয়েকজন ব্যক্তি বসে আছেন। গোপন মিটিং করছেন তারা। মিটিংয়ের বিষয় অত্যন্ত স্পর্শকাতর। তাই মিটিং স্থলের চারপাশে কড়া নিরাপত্তা। মিটিংটা শুরু হবার আগেও চারপাশ ভালোভাবে খুঁজে দেখা হয়েছিলো, কোনো প্রকার গোপন ডিভাইস লাগানো আছে কিনা রুমে।

0 Comments

ডগ’স সুইসাইড ব্রিজ: যে ব্রিজ থেকে কুকুর’রা আত্মহত্যা করে

ব্রিজটি স্কটল্যান্ডের ডাম্বারটনে অবস্থিত। ব্রিজটির নাম ওভারটাউন, যা ১৯ শতকে নির্মিত হয়েছিল। কুকুরদের আত্মহত্যার কারনে এই ব্রিজ নিজের নাম হারিয়ে রূপ নিয়েছে ‘ডগ'স সুইসাইড ব্রিজ। গথিক শৈলীতে নির্মিত এই সেতুটির কাঠামো অসামান্য। সেতুর থেকে ৫০ ফুট নিচেই রয়েছে একটি পাথুরে গিরিখাত।

0 Comments

নবাব সিরাজউদ্দৌলা, ইংরেজ ও এক আর্মেনিয় গুপ্তচর

১৭৫৭ সালে নবাব সিরাজউদ্দৌলা ইংরেজদের নবনির্মিত শহর কলকাতা আক্রমণ করলেন। সিরাজের আক্রমণে ইংরেজদের নবনগরী ভেঙে গেলো খান খান হয়ে। খড়ের মতো এক ঝটকায় উড়ে গেলো  দূলুর্গ।  ইংরেজ কেপ্টেন ড্রেকের  নেতৃত্বে প্রাণ রক্ষার জন্য ইংরেজ নর-নারীরা আশ্রয় নিলো  ফলতায়।

1 Comment

৫৩৬ খ্রিস্টাব্দ: মানব ইতিহাসের সবচেয়ে খারাপ বছর

বিজ্ঞানীদের গবেষণা তথ্যমতে ৫৩৬ সাল ছিল গত ২৩০০ বছরের মধ্যে সবচেয়ে শীতল বছর। এই শীতলতা কেবলমাত্র একটি অঞ্চলের মধ্যে সীমাবদ্ধ ছিলো না, পুরো পৃথিবী জুড়েই এই শীতের প্রভাব পড়েছিল।

0 Comments

ক্লিওপেট্রা: জুলিয়াস সিজার ও মার্ক অ্যান্টনির সাথে ত্রিভুজ প্রেম

রাণী ক্লিওপেট্রা ইতিহাসের সবচেয়ে আলোচিত ও সমালোচিত ব্যক্তিত্ব। তাকে নিয়ে লেখা হয়েছে অসংখ্য কালজয়ী নাটক ও উপন্যাস। সেই…

0 Comments

মানব ইতিহাসের প্রথম ‘কনজয়েন্ড টুইন’ চ্যাং ও ইং বেঁচে ছিলেন ৬৩ বছর: জন্ম দিয়েছেন ২১ জন সন্তান!

চ্যাং বাঙ্কার এবং ইং বাঙ্কার জন্মেছিলেন ১৮১১ সালে মেকলং, সিয়াম (জায়গাটির বর্তমানে থাইল্যান্ডের ব্যাংকক শহরের অংশ)। তাদের বাবা…

1 Comment