You are currently viewing আর্নেস্ট হেমিংওয়ের ৪০ টি বিখ্যাত উক্তি

আর্নেস্ট হেমিংওয়ের ৪০ টি বিখ্যাত উক্তি

আর্নেস্ট মিলার হেমিংওয়ে (২১ জুলাই ১৮৯৯ – ২ জুলাই ১৯৬১) একজন মার্কিন সাহিত্যিক ও সাংবাদিক ছিলেন। তার আইসবার্গ তত্ত্ব নামে পরিচিত নির্মেদ ও নিরাবেগী লেখনী বিংশ শতাব্দীর কথাসাহিত্যের ভাষাশৈলীতে ব্যাপক প্রভাব ফেলে; অন্যদিকে তার রোমাঞ্চপ্রিয় জীবন ও ভাবমূর্তি পরবর্তী প্রজন্মের কাছে তাকে প্রশংসিত করে তোলে।

বিংশ শতাব্দীর বিশের দশকের মাঝামাঝি থেকে পঞ্চাশের দশকের মাঝামাঝি পর্যন্ত সময়ে তিনি তার অধিকাংশ সাহিত্যকর্ম রচনা করেছিলেন এবং ১৯৫৪ সালে সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার লাভ করেছিলেন। তিনি সাতটি উপন্যাস, ছয়টি ছোটগল্প সংকলন এবং দুইটি অকল্পিত সাহিত্য গ্রন্থ প্রকাশ করেছিলেন। তার মৃত্যুর পরে আরও তিনটি উপন্যাস, চারটি ছোটগল্প সংকলন এবং তিনটি অকল্পিত সাহিত্য গ্রন্থ প্রকাশিত হয়েছিল। তার প্রকাশিত গ্রন্থের অনেকগুলোই মার্কিন সাহিত্যের ধ্রুপদী বা চিরায়ত গ্রন্থ হিসেবে বিবেচিত হয়।

১#

বুড়ো মানুষদের খুব ভোরে ঘুম ভাঙে; একটা লম্বা দিন পাবার জন্য।

২#

আমার জানামতে সবচেয়ে দুর্লভ ব্যাপার হচ্ছে বুদ্ধিমান মানুষকে সুখী হতে দেখা।

৩#

জীবনকে যে খুব সিরিয়াস একটা বিষয় মনে করে সে আসলে নিজেকেই হাস্যকর করে ফেলে।

৪#

জায়গাটা বেশ ভালো- সে বললো।

হ্যাঁ অনেক রকম মদ আছে। – আমি একমত হলাম।

[‘দ্য সান অলসো রাইজেস’ থেকে]

৫#

আমি এক পৃষ্ঠা মাস্টারপিস লেখি আর নিরানব্বই পৃষ্ঠা আবর্জনা। সবচেয়ে কঠিন কাজ হলো আবর্জনাগুলোকে ময়লার ঝুড়িতে ফেলে দেয়া।

৬#

যেকোন ভালোলাগার কাজ করার মানে হাততালির প্রত্যাশা না করেই করে যাওয়া৷

৭#

সব মানুষের জীবনের সমাপ্তিটা একই রকম। কেবল সে কিভাবে জীবন কাটিয়েছে এবং কিভাবে মারা গেছে তাই তাকে অন্যদের থেকে আলাদা করে রাখে।

৮#

যে কষ্টের কারণে তুমি এখন আত্মহত্যা করতে চাইছ, সেটা কেটে গেলে আবার তুমি দেখবে জীবনটা অনেক সুন্দর।
[উনি নিজেই আত্মহত্যা করেছিলেন]

৯#

মাতাল অবস্থায় যা বলতেন সেটি স্বাভাবিক অবস্থায় সবসময় করবেন। এইভাবে নিজের মুখটা কিভাবে বন্ধ রাখতে হয় তার শিক্ষা পাবেন।


১০#

মানুষ পরাজিত হওয়ার জন্য তৈরি হয়নি। মানুষকে ধ্বংস করা যায় কিন্তু পরাজিত করা যায় না।
[‘দি ওল্ড ম্যান এন্ড দ্য সি’ উপন্যাস থেকে]


১১#

যেকোনো কিছুর প্রথম খসড়াটি জঘন্য হয়।

১২#

সফল বাবা হতে, একটা মাত্র পরম সূত্র আছে: যখন আপনার সন্তান জন্ম নেওয়ার দুই বছরের মধ্যে তার দিকে তাকানো যাবে না।

পড়ুন:  সাতকাহন উপন্যাসের বিখ্যাত উক্তি

১৩#

কাউকে প্রচন্ড ভালোবাসার সবচেয়ে যন্ত্রনাদায়ক ব্যাপার হলো নিজেকে হারিয়ে ফেলা। ভুলে যাওয়া যে আপনি নিজেও স্পেশাল।

১৪#

আমি মানুষের কথা শুনতে ভালোবাসি। ভালোভাবে অন্যের কথা শুনতে গিয়ে আমি অনেক কিছু শিখেছি। বেশিরভাগ লোক অন্যের কথা শোনে না।

১৫#

সুযোগ ও পার পেয়ে যাওয়ার নিশ্চয়তা থাকলে সবাই খারাপ ব্যবহার করে।

১৬#

লেখালেখির সবচেয়ে কঠিন অংশ হলো লিখে শেষ করা।

১৭#

বইয়ের মতো বিশ্বস্ত বন্ধু আর নাই।

১৮#

আমি ঘুমাতে ভালোবাসি। আমি যখন জেগে থাকি তখন আমার ভেঙে পড়ার প্রবণতা থাকে।

১৯#

বিশ্বস্ত মানুষ খুঁজে পেতে হলে মানুষকে বিশ্বাস করতে হবে।

২০#

আপনার সহকর্মী থেকে ভালো হওয়ার মাঝে মহত্ত্ব নেই। নিজেকে ছাড়িয়ে যাওয়ার মধ্যেই আছে মহত্ত্ব।

২১#

আপনাকে প্রথমে যা করতে হবে, তা হলো একটি বাক্য লিখতে হবে। তবে যাই লিখবেন সত্য লিখুন।

২২#

সব চিন্তাশীল মানুষই নাস্তিক।

২৩#

সাহস চাপের মাঝে অনুগ্রহ।

২৪#

কখনই ভাববেন না যে যুদ্ধ, যতই প্রয়োজনীয় বা যতই ন্যায়সঙ্গত হোক না কেন, অপরাধ নয়।

২৫#

আন্দোলনকে কখনোই নিজের কাজের সাথে গুলিয়ে ফেলবেন না।

২৬#

লেখক হিসেবে আপনার বিচার করা উচিত নয়, বোঝা উচিত।

২৭#

বিড়ালের মধ্যে নিখুঁত মানসিক সততা রয়েছে। মানুষ, এক বা একাধিক কারণে, তাদের অনুভূতিগুলি লুকিয়ে রাখতে পারে, কিন্তু একটি বিড়াল তা করে না।

২৮#

যত দূরেই যান না কেনো আপনি নিজের থেকে দূরে যেতে পারবেন না।

২৯#

আপনি যাকে ভালবাসেন না তার সাথে কখনই ভ্রমণে যাবেন না।

৩০#

জীবন সম্পর্কে লিখতে হলে প্রথমে আপনাকে বাঁচতে হবে।

৩১#

সমস্ত পাপের শুরুই নির্দোষ থেকে শুরু হয়।

৩২#

দুজন মানুষ একে অপরকে ভালোবাসলে তাদের সুখ কখনোই শেষ হবে না।

৩৩#

আমার সারা জীবন আমি শব্দের দিকে এমনভাবে তাকিয়েছি যেন আমি তাদের প্রথমবার দেখছি।


৩৪#

উপন্যাস লেখার সময় একজন লেখকের উচিত জীবন্ত মানুষ তৈরি করা; মানুষ চরিত্র নয়। একটি চরিত্র একটি ব্যঙ্গচিত্র..

৩৫#

আপনি কিভাবে দেউলিয়া হয়ে গেলেন?
দুটি উপায়।
ধীরে ধীরে, তারপর হঠাৎ।

৩৬#

সবাই খারাপ আচরণ করে — সুযোগ দিলে।

পড়ুন:  মীর মশাররফ হোসেন এর বিখ্যাত উক্তি

৩৭#

একজন লেখককে যা বলার তা লিখতে হবে, কথা না বলে।

৩৮#

আশা না করা বোকামি।

৩৯#

আমি অবিশ্বস্ত নই, প্রিয়তম। আমার অনেক দোষ আছে কিন্তু আমি খুব বিশ্বস্ত। তুমি আমাকে নিয়ে অসুস্থ হবে আমি এত বিশ্বস্ত হব।

৪০#

আত্মহত্যা না করার আসল কারণ হ’ল আপনি সর্বদা জানেন যে নরক শেষ হওয়ার পরে জীবন কীভাবে ফুলে ওঠে।

Leave a Reply