জ্যাক মা উক্তি | ২৫ টি বিখ্যাত উক্তি

জ্যাক মা জনপ্রিয় ট্রেডিং সাইট আলিবাবা ডট কম এর কর্ণধার এবং চীনের শীর্ষ ধনী ব্যক্তি। বর্তমানে জ্যাক মা এর সম্পদের পরিমাণ ২৫০০ কোটি ডলার। আলিবাবাতে তার ৭.৮% স্টেক আছে এবং পেমেন্ট প্রক্রিয়াকরণ প্রতিষ্ঠান আলি পে তে তার স্টেক প্রায় ৫০%।

নিজেকে বদলেছি, স্বপ্ন বদলাইনি।

আমি কাজ করতে এ পৃথিবীতে আসিনি , আমি পৃথিবীটা উপভোগ করতে আসতে চেয়েছিলাম। আমি আমার অফিসে মরতে চাইনা। আমি কোন সাগর সৈকতে মরতে চাই।

আমি সকলের পছন্দের ব্যাক্তি নয় বরং সকলের সম্মানের ব্যাক্তি হতে চাই।

পৃথিবীর নতুন নেতৃত্ব দরকার । আর নতুন নেতৃত্ব হচ্ছে একত্রে কাজ করা।

আপনার প্রতিযোগীদের থেকে আপনার শেখা উচিত । কিন্তু কখনোই অনুকরন করবেন না। কপি করেছেন তো মরেছেন।

আমাদের কখনোই ২০ বছরেরর প্রোগ্রাম ২ বছরে শেষ করা উচিত নয়।

যখন আমাদের টাকা থাকে তখন আমরা ভুল করা শুরু করি।

সুযোগ সেখানেই নিহিত যেখানে অভিযোগ আছে।

আমি নিজেকে সবসময় আনন্দিত রাখতে চেষ্টা করি। কারণ আমি জানি যদি আমি খুশি না থাকি তবে আমার সহকর্মী, অংশীদার ও ক্রেতারাও খুশি থাকবে না।

১০

কখনো সরকারের সঙ্গে ব্যবসা করো না। তাদের সঙ্গে ভালোবাসা রেখো কিন্তু বিয়ে বসো না।

১১

তুমি যদি হাল ছেড়ে না দাও তবে এখনো তোমার সুযোগ আছে। হাল ছেড়ে দওয়াটাই সবচেয়ে বড় ব্যর্থতা।

১২

ক্ষুধার্ত থাকো এবং স্বপ্নের পেছনে দৌড়াও।

১৩

আমি প্রযুক্তিবিদ নই। কিন্তু গ্রাহকদের চোখ দিয়ে, সাধারণ মানুষের চোখ দিয়ে আমি প্রযুক্তি দেখি।

১৪

কেউ যদি নিজের জীবনে উন্নতি করতে চায় তবে এর পেছনে মূল কারন ৪টি এগুলো হচ্ছে।
১) সুযোগের প্রতি ক্ষীণদৃষ্টি দেয়া এবং তার সৎ ব্যবহার করা।
২) সুযোগ খুঁজতে থাকা, কখন আসবে তা আপনি জানেন না তাই সচেষ্ট থাকা।
৩) যেকোনো জিনিস বুঝতে জানা, বুঝার চেষ্টা করা।
৪) হেরে যেতে না জানা, যদি হেরে যেতে হয় তবে এতো জলদি কেনো? লেগে থাকতে জানতে হবে।
উপরের সব কিছু যে অনুসরন করবে সে কখনোই দরিদ্র হয়ে থাকবেনা। আর

আরো পড়ুন   ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের উক্তি: ৫০ টি বিখ্যাত উক্তি

১৫

নিজের জন্য নিজেকেই এগিয়ে আসতে হবে। চিন্তা করতে হবে, ভাবনার সাথে প্রয়গিক বাস্তবতার সন্নিবেসন ঘটাতে হবে।

১৬

আপনি নিজের ৩৫ বছর বয়সেও যখন কোন উন্নতি করতে পারবেন না সবাই আপনাকে উপহাস ঠিকি করবে কিন্তু কেউই আপনাকে হাত ধরে এগিয়ে নিয়ে যাবেনা।

১৭

যখন আপনার বাবা মায়ের চিকিৎসা ব্যয় আপনি মিটাতে পারবেন না কেউই আপনাকে তা দিবেন না।

১৮

আপনি দরিদ্র তাই সবাই আফসোস করবে কেওই আপনাকে সচ্ছল বানিয়ে দিবেনা।

১৯

গরীব কারন আপনি আপনার সর্বচ্চো ক্ষমতা, ব্যবহার করতে পারেন নি।

২০

আপনার দারিদ্রতা কারন আপনি আপনার ভীরুতাকে জয় করতে পারেন নি।

২১

আপনি গরীব কারন আপনার দূরদর্শিতার অভাব।

২২

এগিয়ে যাও তা না হলে ঘরে ফিরে যাও।

২৩

জীবনে অনেক উপরে উঠতে হলে ২৫ বছর থেকেই শুরু করুন, নিজে পরিকল্পনা করুন, তাই করুন যা আপনি উপভোগ করতে জানেন।

২৪

আপনি যদি একটি দরিদ্র ঘরে জন্ম নিয়ে নিজের ৩৫ বছর বয়সেও সেই দরিদ্রই থাকেন তবে দরিদ্র হয়ে থাকাটা আপনার কপালের দোষ নয়, আপনি এটি প্রত্যাশা করেন। কারন আপনি আপনার যুবক বয়সকে কোন কাজে লাগাতে পারেন নি, আপনি সম্পূর্ণ ভাবে সময়টা নষ্ট করে দিয়েছেন।

২৫

আপনার দরিদ্র হয়ে জন্মানোটা দোষের না কিন্তু দরিদ্র হয়ে থাকাটাই দোষের।

Leave a Comment